Breaking News

শাহজাহান চৌধুরীকে অন্যায়ভাবে গ্রেফতারের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ

বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় মজলিসে শূরার সদস্য, চট্টগ্রাম মহানগরী শাখার নায়েবে আমীর ও সাবেক এমপি সর্বস্তরের মানুষের প্রিয় নেতা জনাব শাহজাহান চৌধুরীকে অন্যায়ভাবে গ্রেফতারের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর সেক্রেটারি জেনারেল ও সাবেক এমপি অধ্যাপক মিয়া গোলাম পরওয়ার ১৫ মে এক বিবৃতি প্রদান করেন।

বিবৃতিতে তিনি বলেন, “১৪ মে পবিত্র ঈদুল ফিতর দিবাগত রাত ৩টায় সাতকানিয়া পৌরসভার ছমদর পাড়ার নিজ বাড়ি থেকে জামায়াতে ইসলামীর নায়েবে আমীর, সাবেক এমপি ও গণমানুষের প্রিয় নেতা জনাব শাহজাহান চৌধুরীকে পুলিশ অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করেছে। তার বিরুদ্ধে কোনো ওয়ারেন্ট ছিল না। ইতোপূর্বে তার বিরুদ্ধে দায়েরকৃত সকল রাজনৈতিক মামলায় তিনি জামিনে মুক্ত রয়েছেন।

পবিত্র ঈদের দিন মানুষ পরিবার-পরিজন, আত্মীয়-স্বজন, পাড়া-প্রতিবেশি সকলকে নিয়ে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করে থাকে। মুসলমানদের ঘরে ঘরে এক উৎসবমুখর ও আনন্দ ঘন পরিবেশ বিরাজ করে। মুসলমানরা ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করে ভ্রাতৃত্বের বন্ধনকে আরো সুদৃঢ় করার সুযোগ লাভ করে। এটা আবহমান বাংলার মুসলিম সংস্কৃতিরই এক অবিচ্ছেদ্য অংশ। এমনই এক পরিবেশে সরকার সাবেক এমপি ও সর্বস্তরের মানুষের প্রিয়নেতা জনাব শাহজাহান চৌধুরীকে গ্রেফতার করেছে।

এ গ্রেফতারের মাধ্যমে সরকারের ইসলামী সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য ধ্বংসের চিত্র ফুটে উঠল। আমি সরকারের এই অন্যায় গ্রেফতারের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। পবিত্র রমজান মাসে এমনকী পবিত্র ঈদের দিনেও পুলিশ গ্রেফতার অভিযান পরিচালনা করে ইসলামী সংস্কৃতি ধ্বংসের কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছে। আমরা স্পষ্টভাবে বলতে চাই, রমজান, ঈদ, তারাবীহ নামাজ থেকে রাজনৈতিক নেতা-কর্মীদের গ্রেফতারের পরিণতি কখনো শুভ হবে না।

এর কুফল সমাজে এক নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে, যা দেশ-জনগণ কারোর জন্যই কাম্য নয়। বিবৃতিতে তিনি বলেন, রাষ্ট্রের আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী তাদের উপর অর্পিত দায়িত্ব পালনের পরিবর্তে সরকারের হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে। জনাব শাহজাহান চৌধুরীসহ সারাদেশে গ্রেফতারকৃত সকল নেতা-কর্মীকে অবিলম্বে মুক্তি দেওয়ার জন্য আমি সংশ্লিষ্ট মহলের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।”

অপর এক বিবৃতিতে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর নায়েবে আমীর ও সাবেক এমপি মাওলানা আনম শামসুল ইসলাম বলেন, “সরকার রমজানের শুরু থেকেই দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে জামায়াতে ইসলামীর নেতা-কর্মী ও সাধারণ মুসল্লীদের গ্রেফতার করে হয়রানি করছে। মুসলমানদের অন্যতম প্রধান ধর্মীয় অনুষ্ঠান পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপনের সময় জনাব শাহজাহান চৌধুরীকে গ্রেফতার করে সরকার প্রমাণ করেছে

এ দেশের মানুষের ধর্ম পালনের অধিকারও নেই। আমি পুলিশের এই অন্যায় গ্রেফতারের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি এবং জনাব শাহজাহান চৌধুরীসহ গ্রেফতারকৃত নেতা-কর্মীদের অবিলম্বে মুক্তি দেওয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।”

Check Also

Following consecutive remands; Jamaat leaders were sent to jail

The Jamaat leaders, who were arrested from an organizational meeting on last 6th September, were …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *