Breaking News

অবশেষে করোনার ভ্যাকসিন!

চীনের উহান থেকে করোনা ভাইরাসের মৃত্যুর মিছিল শুরু, শেষ নিয়ে শঙ্কায় যখন চিকিৎসকরা তখন বিভিন্ন দেশের চিকিৎসক ও গবেষকরা খুঁজে চলেছেন এর প্রতিষেধক। চালাচ্ছেন নানা পরীক্ষা।

তবে করোনার ভ্যাকসিন তৈরি কঠিন গবেষকদের এমন শঙ্কার মধ্যেই আশার কথা জানিয়ে দিলেন যুক্তরাষ্ট্রের পিটার্সবার্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানীরা। তাদের দাবি, করোনা ভাইরাসের সম্ভাব্য ভ্যাকসিনের খোঁজ পাওয়া গেছে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে জানানো হয়, ওই বিজ্ঞানীরা বৃহস্পতিবার (০২ এপ্রিল) গবেষণা সংক্রান্ত নিবন্ধ ‘ইবোয়ামেডিসিন’ সাময়িকীতে গবেষণার ফলাফল প্রকাশ করেন। তারা মনে করছেন, খুব দ্রুত ভ্যাকসিন উৎপাদন করা যাবে, যা উল্লেখযোগ্যভাবে রোগের বিস্তারকে প্রভাবিত করতে সক্ষম হবে।

রয়টার্স জানিয়েছে, গবেষকদের তৈরি ভ্যাকসিন ছোট্ট আঙুলের মাথায় বসানো যায়—এমন প্যাঁচের শরীরে সরবরাহ করা যাবে। ভ্যাকসিনটি ইঁদুরের দেহে পরীক্ষা করে দেখা হয়েছে। এ সময় এটি যথেষ্ট অ্যান্টিবডি তৈরি করেছে, যা ভাইরাসকে রুখে দিতে সক্ষম।

গবেষকেরা বলছেন, তারা দ্রুত কাজ সম্পন্ন করতে পারবেন। কারণ, ইতিমধ্যে তাঁরা সার্স ও মার্সের মতো একই ধরনের করোনাভাইরাস নিয়ে গবেষণা করেছেন।

পিট স্কুল অব মেডিসিনের সার্জারি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ও গবেষণা নিবন্ধনের জ্যেষ্ঠ লেখক অ্যান্ড্রিয়া গ্যাম্বোত্তো এক বিবৃতিতে বলেন, সার্স ও মার্স—এ দুটি ভাইরাসের সঙ্গে সার্স-কোভ-২ ভাইরাসটি খুব ঘনিষ্ঠ সম্পর্কযুক্ত। এটি গবেষকেদের ‘স্পাইক প্রোটিন’ নামের নির্দিষ্ট একটি প্রোটিন সম্পর্কে যথেষ্ট তথ্য দিয়েছে, যা এর বিরুদ্ধে প্রতিরোধী ক্ষমতা তৈরির ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ।

Check Also

গুম হওয়া পরিবারের আকুতি ওদের ফিরিয়ে দিন

এক হাতে স্বামীর ছবিসংবলিত একটি প্ল্যাকার্ড বুকে জড়িয়ে আর অন্য হাতে ছোট্ট সন্তানকে কোলের কাছে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *