pendrago writing service reviews brighton masters creative writing blog writing service pricing best creative writing ba uk essay writers professional the essay on duality of man has been written by the following creative writing masters concordia public order crime essay business essay writing service case study of self help group in assam site for creative writing creative writing water edinburgh council creative writing literature review help uk gcse english language creative writing resources creative writing banner creative writing professor writing custom nifi processor creative writing leeds trinity narrative essay peer editing resume cover letter maker creative writing lesson plans guardian university guide creative writing robot essay writer importance of doing sports essay creative writing on introducing homework maker philippines writing custom rules in java via a sonarqube plugin is homework help students learn west virginia wesleyan mfa creative writing edgehill creative writing creative writing scholarships international students 2020 creative writing bags creative writing grade 2 writing custom tags in jsp bank will writing service job creative writing introduction essay order dphil creative writing creative writing ba bath spa uc davis creative writing ma smart custom writing reviews mfa creative writing new orleans svsu creative writing reddit homework help programming creative writing summer camp austin creative writing looking at a picture automatic annotated bibliography maker darlington creative writing roman numerals primary homework help creative writing uon conquer creative writing 2 creative writing a walk in the woods creative writing and publishing masters father of the bride speech writing service creative writing and film production the price is right case study sri suria hotel construction cv writing service southern illinois university creative writing mfa in creative writing paying someone to do my homework online purchase intention literature review expectation in subject creative writing ucsd extension creative writing creative writing getting started canada primary homework help creative writing learning module professional business plan writer uk year 7 creative writing lesson make money by doing homework creative hobbies help to cope with stress essay business plan writers resume help writing service custom writing china primary homework help co uk tudors clothes exercises for teaching creative writing feeling nervous creative writing frank cottrell boyce creative writing when did you do your homework last night how to learn creative writing online how to start doing your homework business plan writers vancouver bc greatminds homework helpers teachers need to be paid more essay victoria homework help grade 9 creative writing piece getting shot creative writing i have been doing my homework apocalypse creative writing will writing service teddington when your teacher says do your essay show my homework price cover letter for tier 1 help desk law school paper writing service creative writing canterbury creative writing boot camp creative writing vacancies creative writing course malaysia business plan creator app creative writing setting
Breaking News

আসুন জেনে নেই রোগ প্রতিরোধে যা বলে ইসলাম

স্বাস্থ্যই সম্পদ। মহান আল্লাহ তায়ালা আমাদের সৃষ্টি করেছেন একমাত্র তাঁরই ইবাদতের জন্য। তাই যথাযথভাবে ইবাদত করার জন্য দরকার শারীরিক, মানসিক ও আত্মিক সুস্থতা। একজন মুমিনের জন্য মহান রবের দেয়া এই সুস্বাস্থ্য অন্যতম একটি আমানত। হাদিস শরিফে এসেছে, রাসূলুল্লাহ সা: ইরশাদ করেন‘দু’টি নিয়ামতের বিষয়ে বেশির ভাগ মানুষ অসতর্ক ও প্রতারিত। সেগুলো হলো সুস্থতা ও অবসর’ (সহিহ বোখারি)। কিয়ামতের দিন বান্দাদেরকে যেসব নিয়ামত সম্পর্কে প্রশ্ন করা হবে তন্মধ্যে সর্বপ্রথম প্রশ্ন করা হবে সুস্থতা প্রসঙ্গে। তাকে বলা হবে ‘আমি তোমাদের শারীরিক সুস্থতা দেইনি?; (সুনানে তিরমিজি)।

ইসলামের দৃষ্টিতে ‘অসুস্থ হয়ে চিকিৎসা গ্রহণ করার চেয়ে স্বাভাবিক অবস্থায় স্বাস্থ্য রক্ষার জন্য স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা উত্তম।’ আধুনিক যুগে চিকিৎসাবিজ্ঞান ইসলামের সেই থিওরি স্বীকার করে ঘোষণা করে, চৎবাবহঃরড়হ রং নবঃঃবৎ ঃযধহ পঁৎব. অর্থাৎ রোগ প্রতিরোধ রোগ নিরাময়ের চেয়ে শ্রেয়। রোগাক্রান্ত হলে অবিলম্বে চিকিৎসা নেয়া ইসলামী শরিয়তের দৃষ্টিতে জরুরি। বিশ্বনবী সা: অসুস্থ হলে নিজে চিকিৎসা নিতেন এবং তাঁর অনুসারীদের চিকিৎসা নিতে উৎসাহিত করতেন। সুস্থ থাকতে মানুষ চিকিৎসকের যেকোনো পরামর্শ বা চিকিৎসা গ্রহণ করতে প্রস্তুত। কিন্তু প্রায় দেড় হাজার বছর আগে মহানবী সা: মানবজাতিকে সুস্থ থাকতে যে সব নির্দেশনা দিয়েছেন তা পুরোপুরি মেনে চললে সুস্থতা অবধারিত। তাই যেসব নির্দেশনা মেনে চললে সুস্থ থাকা যায় তা নিম্নে উল্লেখ করা হলো

১. মানুষ সাধারণত রোগাক্রান্ত হয় খাদ্য ও পানীয়ের দ্বারা। সে হিসেবে সব রোগের মূল কেন্দ্রস্থল মানুষের পেট। তাই খাদ্য গ্রহণের ক্ষেত্রে পরিমিত মাত্রায় খাদ্য গ্রহণ করতে হবে। ইসলাম এ বিষয়ে মধ্যমপন্থা অবলম্বন করতে নির্দেশ দিয়েছে এবং অতি ভোজন করতে নিরুৎসাহিত করেছে। হাদিস শরিফে বর্ণিত আছে, রাসূলে আকরাম সা: ইরশাদ করেছেন, ‘পেটের এক-তৃতীয়াংশ খাদ্য দিয়ে, এক-তৃতীয়াংশ পানীয়ের জন্য এবং এক-তৃতীয়াংশ শ্বাস-প্রশ্বাসের জন্য খালি রাখবে’ (সুনানে ইবনে মাজাহ)।

২. খাবার ও পানীয় ঢেকে রাখা। রাসূল সা: খাদ্য ও পানীয় সব সময় ঢেকে রাখার জোর তাকিদ দিয়েছেন। কেননা, তাতে অসুস্থতার পাশাপাশি মানুষের মৃত্যুরও ঝুঁঁকি রয়েছে। হাদিস শরিফে ইরশাদ হচ্ছে রাসূলে আকরাম সা: বলেন, ‘তোমরা খাদ্য ও পানীয় ঢেকে রাখো, মশকের মুখ বন্ধ করে দাও, প্রদীপ নিভিয়ে দাও এবং ঘরের দরজা বন্ধ করে দাও। কারণ, শয়তান বন্ধ মশক খুলতে পারে না, বন্ধ দরজাও খুলতে পারে না এবং বন্ধ পাত্রও খুলতে পারে না। তোমাদের কোনো ব্যক্তি যদি পাত্র ঢাকার মতো কিছু না পায়, তবে সে যেন একটি কাঠ আড়াআড়িভাবে রেখে দেয় এবং আল্লাহর নাম স্মরণ করে’ (সুনানে ইবনে মাজাহ)।

৩. খাদ্যে ফুঁঁ না দিয়ে খাবার শুরু করা। খাবার ও পানীয়ে ফুঁঁ দেয়ার কারণে অনেক ধরনের রোগ হতে পারে। ‘হজরত আবু সাইদ খুদরি রা: থেকে বর্ণিত, রাসূল সা: পানীয়ে ফুঁঁ দিতে নিষেধ করেছেন। একজন আরজ করল, পাত্রে কখনো কখনো ময়লা দেখা গেলে কী করা? তিনি সা: বললেন, ‘তা ঢেলে ফেলে দেবে’ (তিরমিজি, রিয়াদুস সালেহিন)। আধুনিক বিজ্ঞান বিষয়টিকে জোর দিয়ে আমল করার পরামর্শ দিয়েছে। কারণ, পানীয়ে ফুঁ দিয়ে তা পান করলে তাতে কার্বন-ডাই-অক্সাইড মিশে আমাদের শরীরে ক্ষতিকারক জটিলতা সৃষ্টির আশঙ্কা রয়েছে।

৪. হাত পরিষ্কার রাখার অভ্যাস সবারই থাকা দরকার। যার মাধ্যমে সহজেই অসুস্থতা থেকে বাঁচা যায়। হাত নানা ধরনের জীবাণু বহন করে বিভিন্ন স্বাস্থ্যঝুঁঁকি বাড়ায়। তাই রোগমুক্ত থাকতে নিয়মিত ভালোভাবে হাত ধুতে হবে। সঠিক নিয়মে হাত ধোয়ার অভ্যাস একটি ভালো ভ্যাকসিনের চেয়ে বেশি কাজ করে। তাই দেড় হাজার বছর আগে খাওয়ার আগে ও পরে হাত ধৌত করার প্রতি ইসলামের নির্দেশ এসেছে। রাসূল সা: খাওয়ার আগে হাত ধোয়ার আদেশ দিয়েছেন। ‘আম্মাজান আয়েশা রা: থেকে বর্ণিত। রাসূল সা: পানাহারের আগে উভয় হাত কব্জি পর্যন্ত ধুয়ে নিতেন’ (মুসনাদে আহমাদ)। আবার পায়খানা থেকে পানি খরচ করার পর বাইরে এসে মাটিতে হাত মলার অভ্যাস ছিল প্রিয় নবীজি সা:-এর। হজরত আবু হুরায়রা রা: থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, ‘যখন নবীজি সা: পায়খানায় যেতেন আমি তাঁর জন্য পিতল বা চামড়ার পাত্রে পানি নিয়ে যেতাম। অতঃপর তিনি সা: ইস্তেঞ্জা করে মাটিতে হাত মলতেন’ (সুনানে আবু দাউদ)।

৫. দৈহিক সুস্থতার পাশাপাশি মানসিক সুস্থতাও জরুরি। বরং মানসিক সুস্থতা দৈহিক সুস্থতার পূর্বশর্ত। কারণ মানসিক প্রশান্তি ও উৎফুল্লতা দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। মানসিক উৎকণ্ঠা ও অস্থিরতা দেহের রোগ প্রতিরোধ কমিয়ে ফেলে। তাই ইসলাম মনোদৈহিক স্বাস্থ্যের প্রতি লক্ষ রেখে বৈবাহিক জীবন ব্যবস্থার প্রতি খুব গুরুত্ব দিয়েছে। তা ছাড়া ইসলামের ইবাদত ব্যবস্থা ও জিকির-আজকারের দ্বারাও মানসিক প্রশান্তি লাভ করা যায়। পবিত্র কুরআনে আল্লাহ তায়ালা বলেন, ‘জেনে রাখো! আল্লাহ তায়ালার জিকির দ্বারা অন্তরসমূহ প্রশান্ত হয়’ (সূরা রাদ-২৮)।

৬. পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা ইসলামের মৌলিক নির্দেশনা ও ঈমানের অঙ্গ। পরিবেশ পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখার প্রতিও নির্দেশ দেয়া হয়েছে। কারণ, পরিবেশ দূষণের কারণে মানবসমাজে বিভিন্ন ধরনের রোগ ছড়ায়। হাদিসে এসেছে, রাসূলে কারিম সা: ইরশাদ করেন, ‘তোমরা তোমাদের বাড়ির আঙ্গিনার সব দিকে পরিষ্কার রাখবে। ইহুদিদের অনুকরণ করো না। তারা বাড়িতে আবর্জনা জমা করে রাখে’ (সুনানে তিরমিজি)। তা ছাড়া কেউ যদি মিসওয়াক, অজু, গোসল, পোশাক-আশাক প্রভৃতির ক্ষেত্রে ইসলামী নির্দেশনা মেনে চলে, তাহলে সে অপরিচ্ছন্নতাজনিত রোগব্যাধি থেকে নিরাপদ থাকতে পারবে।

৭. যত্রতত্র মলমূত্র ত্যাগ করা নিষেধ করা হয়েছে। কারণ তাতে রোগব্যাধি ছড়ানোর আশঙ্কা রয়েছে। হাদিস শরিফে এসেছে, রাসূলে কারিম সা: ইরশাদ করেন, ‘তোমরা তিন অভিশপ্ত ব্যক্তি থেকে বেঁচে থাকো। তারা হলো যে পানির ঘাটে, রাস্তার ওপর ও গাছের ছায়ায় মলমূত্র ত্যাগ করে’ (সুনানে আবু দাউদ)। এক কথায়, আধুনিক বিজ্ঞান মানবদেহ রোগাক্রান্ত হওয়ার যেসব দিক নির্ণয় করেছে এবং এর প্রতিষেধক আবিষ্কার করেছে, তা প্রায় দেড় হাজার বছর আগে মানবতার কল্যাণ ও মুক্তির কাণ্ডারি বিশ^নবী হজরত মুহাম্মদ সা: পুরোপুরিভাবে কুরআন ও হাদিসে বর্ণনা করে গেছেন। তাই বলা যায়, ইসলাম এমন একটি জীবন ব্যবস্থার নাম, যেখানে মানবতার কল্যাণ ও সফলতার জন্য যেসব পদক্ষেপ গ্রহণ করা দরকার, সেখানে তাই করা হয়েছে। এস এম আরিফুল কাদের,লেখক : আলেম ও গবেষক

Check Also

যে কারণে ইরানের সর্বোচ্চ নেতা পাশ্চাত্যের তৈরী করোনা ভ্যাকসিন নিষিদ্ধ করলেন!

ব্রিটিশ এবং আমেরিকানদের বিশ্বাস নেই! পাশ্চাত্য ভ্যাকসিন নিষিদ্ধ ইরানে। ইরানের সর্বোচ্চ নেতা জানিয়ে দিয়েছেন কোনওমতেই …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *