Breaking News

গুটি কয়েকজনকে দিয়ে নারীর ক্ষমতায়ন বলা যাবে না : রওশন

বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদ বলেছেন, জাতীয় পার্টি (জাপা) বিরোধী দল হিসেবে সরকারের ভুলত্রুটি তুলে ধরছে। পাশাপাশি সরকারের সঙ্গে সমন্বয় করে উন্নয়নে সহযোগিতা করছে। যে কারণে দেশ দুর্বার গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে। দেশের উন্নয়নে জাপার ভূমিকা কোনো অংশে কম নয়। ইতিহাস একদিন এর মূল্যায়ন করবে।

মঙ্গলবার সংসদে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আনা ধন্যবাদ প্রস্তাবের উপর আলোচনা ও ষষ্ঠ অধিবেশনের সমাপনী বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

রওশন বলেন, অতীতে সরকার ও বিরোধী দলের সমন্বয় হয়নি। যে কারণে দেশের অগ্রগতি হয়নি। বক্তব্যের একপর্যায়ে রওশন এরশাদ প্রশ্ন রাখেন, ‘নারীর ক্ষমতায়ন কোথায়?’ এ সময় স্মিত হেসে প্রধানমন্ত্রী আঙুল দিয়ে নিজের, স্পিকার ও বিরোধী দলীয় নেতাকে ইঙ্গিত করেন। সংসদ সদস্যরা এসময় টেবিল চাপড়ে প্রধানমন্ত্রীকে সমর্থন জানান। এরপর রওশন এরশাদ বলেন, আমি বলতে চাইছি যে ভাগ্যচক্রে এটা হয়ে গেছে। গুটিকয়েক মহিলাকে নিয়ে নারীর ক্ষমতায়নের কথা বলা যাবে না। শিক্ষার হার দেখতে হবে। নারীরা কীভাবে নির্যাতিত হচ্ছে এটা দেখতে হবে।

দেশে নারীর ক্ষমতায়ন হয়নি দাবি করে রওশন বলেন, প্রধানমন্ত্রীতো প্রধানমন্ত্রী, তিনি থাকবেন। প্রধানমন্ত্রীকে কেউ সরাতে পারবেন না। আর তিনি নিজে বিরোধীদলীয় নেতা হয়েছেন ভাগ্যক্রমে। সংসদে পুরুষ সদস্য বেশি, নারী কম। গুটি কয়েক নারীকে নিয়ে নারীর ক্ষমতায়নের কথা বলা যাবে না।

বিরোধীদলীয় নেতা বলেন, অর্থমন্ত্রী বলেছেন- বাংলাদেশ সিঙ্গাপুর মালয়েশিয়াকে অতিক্রম করে যাবে। অর্থমন্ত্রী কীভাবে একথা বললেন, তার ব্যাখ্যা শোনার জন্য তিনি অধীর আগ্রহে আছেন।

রওশন বলেন, ব্যাংকে টাকা নেই, অনেকে ব্যাংক থেকে ঋণ নিয়ে ফেরত দেয়নি, টাকা বাইরে নিয়ে গেছে, শেয়ারবাজারে ধস নেমেছে, কেন্দ্রীয় ব্যাংকের রিজার্ভ চুরি হয়ে গেছে, সোনা তামা হয়ে গেছে। এই পরিস্থিতিতে কীভাবে বাংলাদেশ মালয়েশিয়া, সিঙ্গাপুরকে টপকে যাবে তার একটি ব্যাখ্যা অর্থমন্ত্রীর দেওয়া উচিত।

শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনির সমালোচনা করে রওশন বলেন, শিক্ষামন্ত্রী বেশিরভাগ সময় বিদেশে থাকেন, তাহলে কীভাবে শিক্ষার উন্নয়ন হবে। তাকে খুবই কম দেখেছি সংসদে। কোনো সময় তাকে পাওয়া যায় না। আজকেও নেই।

পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নানের কচুরিপানা নিয়ে বক্তব্যের সমালোচনা করে রওশন বলেন, কিছু কচুরিপানা নিয়ে এসেছিলাম।প্ল্যানিং মিনিস্টার এখানে নেই। গরুর খাবার কি মানুষ খেতে পারে? ঘাসে তো ভিটামিন আছে। আমরা কি ঘাস খাই?

রওশন অভিযোগ করেন,সিটি করপোরেশন এখন ড্রেন পরিষ্কার করে না। মশার যন্ত্রণা বেড়েছে। কথা বলতে গেলে মুখে মশা ঢোকে যায়। জনগণ ওয়াসা, সিটি করপোরেশনকে কর দেয়। তিনি বলেন, ‘তাহলে ট্যাক্স বন্ধ করে দেব। যদি সেবাই না পেলাম তাহলে কেন দেব?’ তরুণ প্রজন্ম রাতে ঘুমায় না, পড়াশোনা করে না দাবি করে রওশন রাত ১১টা থেকে সকাল ৭টা পর্যন্ত ফেসবুক বন্ধ রাখার পরামর্শ দেন।

ইত্তেফাক/

Check Also

Amnesty and HRW urge Bangladesh to immediate release Mir Ahmad, Amaan Azmi

Two human rights organizations – Amnesty International and Human Rights Watch – have urged Bangladesh …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *