Breaking News
Home / জাতীয় / ‘বিশেষ ছাত্রসংগঠনের সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে সমর্থন দিচ্ছে প্রশাসন’

‘বিশেষ ছাত্রসংগঠনের সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে সমর্থন দিচ্ছে প্রশাসন’

বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন তাদের অভিভাবকসুলভ দায়িত্ব যথাযথভাবে পালন করছেন না, বিশেষ ছাত্রসংগঠনের সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে পরোক্ষ সমর্থন দিয়ে যাচ্ছে বলে মনে মন্তব্য করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যায়ের বিএনপি-জামায়াত সমর্থক শিক্ষকদের সংগঠন সাদা দল।

রোববার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এমন মন্তব্য করেছে সাদা দল। ডাকসু ভবনে ঢুকে ভিপি নুরুল হক নুর ও তার ছাত্র অধিকার পরিষদের নেতাকর্মীদের উপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদ ও বিচারের দাবিতে এ বিজ্ঞপ্তি পাঠানো হয়।

সাদা দলের আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. এবিএম ওবায়দুল ইসলাম স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়কে বলা হয় গণতন্ত্রের সূতিকাগার, মুক্তবুদ্ধি চর্চা ও লালনের কেন্দ্র। কিন্তু আমরা অত্যন্ত পরিতাপের সাথে লক্ষ করছি যে, জাতীয় রাজনীতিতে যেমন গণতান্ত্রিক ব্যবস্থাকে সম্পূর্ণরূপে ধ্বংস করা হয়েছে, তেমনি আমাদের প্রিয় বিশ্ববিদ্যালয়েও তা বাস্তবায়নের চেষ্টা চলছে।

সরকার ও বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের সমর্থক ছাত্রসংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ এবং তাদের সমর্থিত মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ বিশ্ববিদ্যালয়ে নিজেদের একক আধিপত্য বজায় রাখার অশুভ মানসিকতা নিয়ে প্রতিনিয়তই ভিন্নমতের রাজনৈতিক ও সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনের ছাত্রদের উপর হামলা ও নির্যাতন চালাচ্ছে।

ডাকসু ভিপির রুমে ঢুকে নির্বাচিত ভিপি ও তার নেতৃত্বাধীন ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের নেতাকর্মীদের উপর আজকের হামলা ক্যাম্পাসে ছাত্রলীগের ধারাবাহিক সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডেরই বহিঃপ্রকাশ বলে বিবৃতিতে দাবি করা হয়। প্রশাসন কোনো বিশেষ ছাত্রসংগঠনের নয় বরং বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল শিক্ষার্থীদের অভিভাবক উল্লেখ করে এতে বলা হয়, আমরা দুঃখের সাথে লক্ষ করছি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন তাদের দায়িত্ব যথাযথভাবে পালন করছেন না।

এমনকি একটি বিশেষ ছাত্রসংগঠনের সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের প্রতি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন এক ধরনের পরোক্ষ সমর্থন দিয়ে যাচ্ছে। সাম্প্রতিক সময়ে ছাত্রলীগ সন্ত্রাসীদের দ্বারা বিভিন্ন সংগঠনের নেতাকর্মী ও শিক্ষার্থীদের গণতান্ত্রিক আন্দোলনে বেশ কয়েকবার হামলার ঘটনায় কর্তৃপক্ষ কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ না করায় আমাদের কাছে তা প্রতীয়মান হয়েছে।

এসব ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ ও ডাকসু ভবনে সন্ত্রাসী হামলার নিন্দা দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়ে বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, বিশ্ববিদ্যালয়ে এমন একটি পরিবেশ কোনোভাবেই মেনে নেয়া যায় না। তাই আমরা এই ন্যাক্কারজনক হামলায় জড়িত ও চিহ্নিত ছাত্র নামধারী সন্ত্রাসীদের দ্রুত দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করছি।

একই সাথে বিশ্ববিদ্যলয়ে যেন সকল দলমতের শিক্ষার্থী ও সংগঠন নির্বিঘ্নে তাদের কর্মকাণ্ড পরিচালনা করতে পারে, সে পরিবেশ নিশ্চিত করার জন্যও কর্তৃপক্ষের নিকট জোর দাবি জানাচ্ছি। বিবৃতিতে সাদা দলের যুগ্ম আহ্বায়ক অধ্যাপক মো: লুৎফর রহমান এবং অধ্যাপক ড. মো: মোর্শেদ হাসান খানসহ অন্যান্যের মধ্যে স্বাক্ষর করেন, অধ্যাপক ড. সদরুল আমিন, অধ্যাপক ড. মো. সিরাজুল ইসলাম, অধ্যাপক ড. মো: আখতার হোসেন খান, অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ ছিদ্দিকুর রহমান খান,

অধ্যাপক ড. মো: আবুল কালাম সরকার, অধ্যাপক মো: আতাউর রহমান বিশ্বাস, অধ্যাপক ড. মো: শহীদুল ইসলাম, অধ্যাপক ড. দিল রওশন জিন্নাত আরা নাজনীন, অধ্যাপক ড. মামুন আহমেদ, অধ্যাপক ড. মো: হাসানুজ্জামান খান, অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আলমোজাদ্দেদী আলফেছানী, অধ্যাপক ড. মো. নুরুল আমিন, ড. মোঃ মহিউদ্দিন, অধ্যাপক ড. মো: গোলাম রব্বানী, অধ্যাপক ড. মো: আবদুর রশীদ, অধ্যাপক আহমেদ জামাল আনোয়র, মোহাম্মদ দাউদ খান, ইসরাফিল প্রামাণিক, মো: আল আমিন, সাবরিনা শাহনাজ প্রমুখ।নয়া দিগন্ত

Check Also

বিয়ের পাত্রী দেখতে গিয়ে এক দ্বীনদার যুবকের ব্যতিক্রমী ৩টি প্রশ্ন অতঃপর যা ঘটলো কল্পনাতীত!

এক মা তার ছেলের জন্য বিয়ের ব্যাপারে এক ধার্মিক মেয়ের সাথে সাক্ষাতের আয়োজন করল। ছেলে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *